বৈধ উপায়ে রেমিট্যান্স পাঠানো নিয়ে সুখবর!

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২২, ০৮:২০ রাত
আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২২, ০৮:২০ রাত
আমাদেরকে ফলো করুন

বানিজ্য প্রতিবেদক।
 
দেশের ইতিহাসে ডলারের দাম রেকর্ড ১০ টাকা বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এর ফলে মঙ্গলবার ডলারের দাম দাঁড়ায় ১০৬ টাকা ১৫ পয়সা। যা বুধবার ৭৫ পয়সা বেড়ে প্রতি ডলার বিক্রি হয়েছে ১০৬ টাকা ৯০ পয়সায়। বাংলাদেশ ব্যাংকের এই সিদ্ধান্তের ফলে প্রবাসীরা বৈধ উপায়ে দেশে রেমিট্যান্স পাঠালে আগে থেকে অনেক বেশি টাকা পাবেন।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে ব্যাংকারদের সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অফ ব্যাংকার্স বাংলাদেশ বা এবিবি ও বৈদেশিক মুদ্রার ডিলার ব্যাংকগুলোর সংগঠন বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলারস অ্যাসোসিয়েশন বা বাফেদা ঠিক করে আন্তঃব্যাংকে ডলারের বিনিময় হার হবে ১০৬ টাকা ১৫ পয়সা। এখন সেই দরকেই আন্তঃব্যাংক দর হিসেবে বেছে নিলো কেন্দ্রীয় ব্যাংক।


বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, টাকা ও ডলারের বিনিময়মূল্য ব্যাংকগুলো নির্ধারণ করেছে। জোগান ও চাহিদা এবং বাংলাদেশ ফরেন এক্সচেঞ্জ ডিলার অ্যাসোসিয়েশনের (বাফেদা) দামের ভিত্তিতে ডলারের এই দাম নির্ধারণ করা হয়েছে।


বিক্রয়মূল্যের পাশাপাশি ডলারের নতুন ক্রয়মূল্যও ঘোষণা হয়েছে। জানানো হয়েছে, ১০১ টাকা ৬৭ পয়সায় ব্যাংকগুলো ডলার কিনবে। ক্রয় ও বিক্রয়ের মধ্যে প্রায় ৫ টাকা ব্যবধানও রেকর্ড। নতুন এই দরে ডলার বিক্রি করেছে ব্যাংকগুলো। এটাকে আন্তঃব্যাংক লেনলেন দর বলে। প্রায় দুই মাসের বেশি সময় ধরে এই আন্তঃব্যাংক লেনদেন বাজার কার্যত অচল ছিল। সরকারি আমদানি ব্যয় মেটাতে অল্প কিছু ডলার বিক্রি করা হতো।

মঙ্গলবার দেশের ইতিহাসে একদিনে সর্বোচ্চ ১০ টাকা বাড়ে ডলারে দাম। এক লাফে প্রতি ডলার সর্বোচ্চ ১০৬ টাকা ১৫ পয়সা দরে বিক্রি করে যা তার আগের দিন ছিল ৯৬ টাকা। ওই দিন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের রিজার্ভ ছিল ৩৭ দশমিক ১৩ বিলিয়ন ডলার।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, নিউজ টিপিবি এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়