১০ হাজারের বেশি ডলার রাখা যাবেনা : বাংলাদেশ ব্যাংক

প্রকাশিত: সেপ্টেম্বর ০১, ২০২২, ০২:২৪ দুপুর
আপডেট: সেপ্টেম্বর ০১, ২০২২, ০২:২৪ দুপুর
আমাদেরকে ফলো করুন

দেশে ডলার সংকট চলছে। সংকট কাটাতে নানা উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এবার নতুন নির্দেশনা দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। আর তা হলো- ১০ হাজারের বেশি ডলার বা সমপরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা এক মাসের অতিরিক্ত সময় কেউ নিজের কাছে রাখতে পারবে না।

এসব মুদ্রা এক মাসের মধ্যে লাইসেন্সধারী মানিচেঞ্জারের কাছে বিক্রি অথবা ব্যাংকে রাখতে হবে। কারো কাছে নির্দিষ্ট সময়ের পর উল্লেখিত পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে নেওয়া হবে আইনি ব্যবস্থা।

বুধবার বাংলাদেশ ব্যাংকের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, কোনো বাংলাদেশি ব্যক্তি বিদেশ থেকে সঙ্গে আনা অনধিক ১০ হাজার মার্কিন ডলার বা সমমূল্যমানের বৈদেশিক মুদ্রা নিজের কাছে অথবা অনুমোদিত ডিলার বা ব্যাংকে রেসিডেন্ট ফরেন কারেন্সি ডিপোজিট হিসাবে জমা রাখতে পারেন। পরবর্তীতে বিদেশ যাত্রায় উক্ত বৈদেশিক মুদ্রা সঙ্গে নিয়েও যেতে পারেন। ১০ হাজার মার্কিন ডলারের অতিরিক্ত বৈদেশিক মুদ্রা দেশে আসার এক মাসের মধ্যে অনুমোদিত ডিলার, ব্যাংক বা লাইসেন্সধারী মানিচেঞ্জারের কাছে বিক্রি অথবা রেসিডেন্ট ফরেন কারেন্সি ডিপোজিট হিসাবে জমা রাখা প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য বাধ্যতামূলক।

কেন্দ্রীয় ব্যাংক আরও জানায়, নিয়ম ভেঙে বৈদেশিক মুদ্রা কাছে রাখা ফরেন এক্সচেঞ্জ রেগুলেশন অ্যাক্ট ১৯৪৭- এর আওতায় দণ্ডনীয় অপরাধ। তাই এমন বৈদেশিক মুদ্রা কোনো নিবাসী বাংলাদেশির নিকট থাকলে তা আগামী ৩০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে অনুমোদিত ডিলার ব্যাংক, লাইসেন্সধারী মানিচেঞ্জারের কাছে বিক্রি করার জন্য বলা হলো।

নির্দিষ্ট সময়ের পর বৈদেশিক মুদ্রা নিবাসী ব্যক্তির নিকট পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে কঠোর আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানানো হয় সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে।

মন্তব্য করুন

খবরের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, নিউজ টিপিবি এর দায়ভার নেবে না।

জনপ্রিয়